নন্দীগ্রামে শুভেন্দুর বিধায়ক কার্যালয়ে বিশাল পুলিশি অভিযান, মুখ্যসচিবের কাছে রিপোর্ট তলব রাজ্যপালের ! - Newz Bangla

Page Nav

HIDE

Post/Page

Weather Location

Breaking !

latest

নন্দীগ্রামে শুভেন্দুর বিধায়ক কার্যালয়ে বিশাল পুলিশি অভিযান, মুখ্যসচিবের কাছে রিপোর্ট তলব রাজ্যপালের !

নন্দীগ্রাম, পূর্ব মেদিনীপুর : আগাম কোনও সূচনা ছাড়াই বিশাল পুলিশ বাহিনী অভিযান চালাল রাজ্যের বিরোধী দলনেতা তথা নন্দীগ্রামের বিধায়ক শুভেন্দু অধিকারীর কার্যালয়ে। তবে কোন অভিযোগের ভিত্তিতে এই অভিযান তা স্পষ্ট নয়। গোটা ঘটনা নিয়ে ক্ষুব…



নন্দীগ্রাম, পূর্ব মেদিনীপুর : আগাম কোনও সূচনা ছাড়াই বিশাল পুলিশ বাহিনী অভিযান চালাল রাজ্যের বিরোধী দলনেতা তথা নন্দীগ্রামের বিধায়ক শুভেন্দু অধিকারীর কার্যালয়ে। তবে কোন অভিযোগের ভিত্তিতে এই অভিযান তা স্পষ্ট নয়। গোটা ঘটনা নিয়ে ক্ষুব্ধ শুভেন্দু অধিকারী ট্যুইট করে এই ঘটনাটি প্রকাশ্যে আনেন। শুভেন্দু তাঁর ট্যুইটে প্রধানমন্ত্রীর দফতর, অমিত শাহ সহ রাজ্যের রাজ্যপালকেও ট্যাগ করেছেন। একাধিক ভিডিও দিয়ে শুভেন্দুর দাবী, “কোনও পূর্ব সূচনা না দিয়ে, কোনও সার্চ ওয়ারেন্ট ছাড়াই এবং ম্যাজিস্ট্রেটের অনুপস্থিতিতে আচমকা মমতা পুলিশ (পশ্চিমবঙ্গ পুলিশ) আমার নন্দীগ্রামের বিধায়ক কার্যালয়ে অনধিকার প্রবেশ করে”।

এই ঘটনাকে রাজ্য সরকারের ষড়যন্ত্র আখ্যা দিয়ে শুভেন্দুর মন্তব্য, “মমতা সরকারের পুলিশের এই জঘন্য অপব্যবহার বিরোধী দলনেতার প্রতি এক ঘৃণ্য ষড়যন্ত্রের প্রমাণ”। শুভেন্দুর ট্যুইটে প্রকাশিত ভিডিওগ্রাফীতে দেখা যাচ্ছে, নন্দীগ্রাম থানার পুলিশ বাহিনী শুভেন্দুর বিধায়ক কার্যালয়ে ঢুকে তাঁর ব্যবহৃত ঘরগুলির সম্পর্কে খোঁজ খবর নিচ্ছেন। সেই সময় বিধায়ক কার্যালয়ের বাইরে ও ভেতরে বিশাল পুলিশ বাহিনী পাহারায় রয়েছেন। এই দলে একঝাক মহিলা পুলিশ কর্মীও ছিলেন। তবে ঠিক কোনও অভিযোগের ভিত্তিতে এই অভিযান তা পুলিশ স্পষ্ট করে জানায়নি।

শুভেন্দু অধিকারীর ট্যুইট :-

রাজ্যপালের ট্যুইট :-

শুভেন্দুর ট্যুইটের কিছু সময় বাদেই রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়। তিনি পাল্টা ট্যুইট করে জানান, “নন্দীগ্রামে শুভেন্দুর বিধায়ক কার্যালয়ে পুলিশ আক্রমণ চালিয়েছে। এর কারন জানতে চিফ সেক্রেটারীর কাছে দ্রুত রিপোর্ট তলব করা হয়েছে”। রাজ্যপালের পাশাপাশি এই ঘটনায় ইতিমধ্যে সুর চড়িয়েছে বিজেপি শিবির। নন্দীগ্রামের বিজেপি নেতা প্রলয় পাল জানান, “বিধায়ক কার্যালয়ে পুলিশ অভিযান চালিয়েছে। এটা অনভিপ্রেত”। এরই পাশাপাশি নন্দীগ্রামের বিজেপি নেতাদের একাংশের দাবী, সম্প্রতি ভোট পরবর্তী হিংসা মামলায় একাধিক তৃণমূল নেতা সিবিআইয়ের ঘেরাটোপে রয়েছে। তাই পাল্টা চাপের কৌশল নিতেই শুভেন্দুর অফিসে পুলিশি অভিযান চলেছে। যদিও এই বিষয়ে কোনও মন্তব্য করতে চাননি নন্দীগ্রামের তৃণমূল নেতৃত্বরা।

প্রসঙ্গতঃ গত বিধানসভা নির্বাচনের ঠিক আগেই নন্দীগ্রামে নিজের দলীয় কার্যালয়ের ঠিকানা ব্যবহার করেই নন্দীগ্রামের ভোটার তালিকায় নাম তুলেছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। বিধানসভা ভোটের দিন এই বাড়িই হয়ে উঠেছিল শুভেন্দুর ভোট পরিচালনার কেন্দ্র। এতদিন বাদে সেই বাড়িতেই পুলিশি অভিযানে নন্দীগ্রাম জুড়ে রীতিমতো শোরগোল পড়ে গিয়েছে। তবে জেলা পুলিশ এই বিষয়ে কোনও মন্তব্য করতে রাজি হয়নি।

পূর্ব মেদিনীপুরের পুলিশ সুপার অমরনাথ কে. জানিয়েছেন, “নন্দীগ্রামের এক রাজনৈতিক নেতার স্ত্রী ভুয়ো কাগজের ভিত্তিতে একটি কোঅপারেটিভ ব্যাঙ্কে চাকরী করছে এই সংক্রান্ত অভিযোগ জমা হয় পুলিশের কাছে। সেই মামলার তদন্ত চলাকালীন পুলিশের কাছে অভিযোগ আসে কয়েকজন এই মামলার অভিযোগকারীদের হুমকি দিচ্ছে। যারা হুমকি দিচ্ছে তাদের ধরতে গ্রামে অভিযান চালাতেই ওই অভিযুক্তরা গা ঢাকা দিতে নন্দীগ্রামের ওই বাড়িতে এসে গা ঢাকা দেয়”।

তিনি বলেন, “আমরা নির্দিষ্ট তথ্য প্রমাণের ভিত্তিতে ওই বাড়িতে অভিযান চালাই। সেই সময় ওই বাড়িতে ছিলেন অনুপম দত্ত নামের এক ব্যক্তি। তাঁকে আমরা ঘরগুলি খুলে দিতে বলি। উনি ৩টে ঘর খুলে দেখান। তবে সব ঘর আমাদের দেখতে দেওয়া হয়নি। গোটা ঘটনার ভিডিওগ্রাফি রয়েছে। কেউ দেখতে চাইলে তাঁরা পুলিশের কাছে এসে সেই ভিডিও দেখতেই পারেন। তবে অভিযুক্তদের না পেয়ে পুলিশ কিছু সময় পরেই ফিরে আসে”।      

মোবাইলে নিউজ আপডেটপেতে হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে যোগ দিন, ক্লিক করুন Whatsapp

No comments