সাত সকালে জোরদার ধরপাকড়, বিনা কারনে বাজারে ঘোরাফেরা করায় গ্রেফতার ৭ ! - Newz Bangla

Page Nav

HIDE

Post/Page

Weather Location

Breaking !

latest

সাত সকালে জোরদার ধরপাকড়, বিনা কারনে বাজারে ঘোরাফেরা করায় গ্রেফতার ৭ !

নিউজবাংলা ডেস্ক : উর্ধমুখী করোনা সংক্রমণ রুখতে অনুরোধ, উপরোধের দিন শেষ। এবার অকারণে বাড়ি থেকে বেরলেই পাকড়াও করবে পুলিশ। এমনই কঠোর অবস্থান নিল ব্যারাকপুর কমিশনারেট। মঙ্গলবার সকালে  বরানগর এলাকায় এমনই ৭ জনকে বাজারে অকারনে ঘোরার দায়…

 


নিউজবাংলা ডেস্ক : উর্ধমুখী করোনা সংক্রমণ রুখতে অনুরোধ, উপরোধের দিন শেষ। এবার অকারণে বাড়ি থেকে বেরলেই পাকড়াও করবে পুলিশ। এমনই কঠোর অবস্থান নিল ব্যারাকপুর কমিশনারেট। মঙ্গলবার সকালে  বরানগর এলাকায় এমনই ৭ জনকে বাজারে অকারনে ঘোরার দায়ে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ধৃতদের বিরুদ্ধে বিপর্যয় মোকাবিলা আইনে মামলা করা হবে বলে বরানগর থানার আধিকারীকরা জানিয়েছেন।

এর আগে মানুষকে সচেডন করতে কখনও মাইক প্রচার করে, কখনওবা মাস্কহীনদের মুখে মাস্ক পরিয়ে সচেতনতা বাড়ানোর চেষ্টা হয়েছে। কিন্তু তাতেও হুঁশ ফিরছে না সাধারণের। কারনে অকারণে বাজারে ভীড় জমানো, মুখে মাস্ক না পরে ঘোরাঘুরি করাটা যেন নেশায় ধরেছে একাংশের। তাই এবার পরিস্থিতি মোকাবিলায় গ্রেফতারির সিদ্ধান্ত নিয়েছে ব্যারাকপুর কমিশনারেট।

এরই পাশাপাশি ব্যারাকপুরে সপ্তাহের কয়েকটা দিন করে বাজার বন্ধের সিদ্ধান্তও নেওয়া হয়েছে। বরানগর, কামারহাটি, ভাটপাড়া, জগদ্দল, হালিশহর, কাঁচরাপাড়া কোথাও সোম, বুধ, শুক্র আবার কোথাও মঙ্গল বৃহস্পতি, শনি। এই সময় জরুরী পরিষেবা ছাড়া কেউ দোকান খুললেই কড়া শাস্তির মুখে পড়তে হবে ওই ব্যাবসায়ীদের। 

প্রসঙ্গতঃ গত এক সপ্তাহে রাজ্যের করোনা গ্রাফ যথেষ্টই উর্ধ্বমুখী। গত এক সপ্তাহে রাজ্যে সংক্রমনের হার ৬ জানুয়ারী ছিল ১৫,৪২১ জন, ৭ জানুয়ারী ছিল ১৮,২১৩ জন, ৮ জানুয়ারী ১৮,৮০২ জন, ৯ জানুয়ারী একলাফে সলক্রমণ বেড়ে দাঁড়ায় ২৪,২৮৭ জন। তবে ১০ তারিখে সংক্রমণের গ্রাফ কিছুটা কমে হয় ১৯,২৮৬ জন। যদিও অন্য দিনের তুলনায় এদিন প্রায় ২০ হাজার কম করোনা টেস্ট করা হয়েছে। এই পরিস্থিতিতে সতর্ক না হলে করেনা গ্রাফ যে রোখা যাবে না তা পরিষ্কার।

No comments