Page Nav

HIDE

Post/Page

Weather Location

Breaking !

latest

নন্দীগ্রামের রেয়াপাড়ায় একই ব্যানারে তৃণমূল নেত্রী ও শুভেন্দুর ছবি, উৎসাহী সমর্থকদের কীর্তি দাবী প্রচারকের !

নন্দীগ্রাম :  রবিবার সকালে আচমকাই নন্দীগ্রাম ২নং ব্লকের রেয়াপাড়ায় দেখা মিলল শুভেন্দু অধিকারী ও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি লাগানো পোষ্টার। আগামী ১০ নভেম্বর নন্দীগ্রামের তেখালিতে বিশাল সমাবেশের সমর্থনে এই পোষ্টার সাঁটা হয়েছে। যে সময় দলীয় প্রতীক বাদ দিয়েই শুভেন্দুবাবুর একাধিক কর্মসূচী চলছে সেই সময় দলনেত্রীর ছবি শুভেন্দুবাবুর পোষ্টারে দেখার পর থেকেই শুরু হয়েছে জোরদার জল্পনা।

ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই মুহূর্তে ভাইরাল হয়ে যায় ছবিগুলি। এই ব্যানারগুলি শুভেন্দুবাবুর নির্দেশেই ঝোলানো হয়েছে কিনা তা নিয়েই শুরু হয় বিতর্ক। ঘটনা জানাজানি হতেই নন্দীগ্রামের তৃণমূল নেতৃত্বের মধ্যে আলোড়ন শুরু হয়ে যায়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক তৃণমূলের প্রথম সারির নেতা যিনি গোকুলনগরের সভা পরিচালনার মূল কমিটিতে রয়েছেন তিনি জানান, গোকুলনগরের সমাবেশ ভূমি উচ্ছেদ প্রতিরোধ কমিটির ব্যানারে করা হচ্ছে। সেখানে শুধুমাত্র শুভেন্দুবাবুর নাম ও ছবি ব্যবহার হলেও তৃণমূলের প্রতীক বা নেতানেত্রীর ছবি ব্যবহারের কোনও নির্দেশ নেই।

 (নন্দীগ্রামের সমাবেশের প্রচারের আসল ব্যানার এটিই, যা সর্বত্র ব্যবহার করা হচ্ছে)

১০ নভেম্বর ভুমি উচ্ছেদ প্রতিরোধ কমিটির ব্যানারে নন্দীগ্রামের গোকুলনগরের তেখালিতে বিশাল জনসভার আয়োজন করেছেন শুভেন্দু অধিকারী। নন্দীগ্রাম-খেজুরির পাশাপাশি রাজ্যের বিভিন্ন জেলা থেকে প্রায় ৫০ হাজারেরও বেশী সমর্থকের জনসমাগম হবে বলে দাবী করছেন শুভেন্দু অনুরাগীরা।

এই সমাবেশকে মিনি ব্রিগেড আখ্যা দিয়ে নন্দীগ্রাম ও খেজুরির সর্বত্র তৃণমূলের প্রতীক বা দলনেত্রীর ছবি বাদ দিয়েই শুভেন্দু অধিকারীকে প্রধান বক্তা উল্লেখ করে শতাধিক ব্যানার ও ওভারহেড গেটে ছেয়ে গিয়েছে এলাকা।

সেখানে রেয়াপাড়ায় কার নির্দেশে শুভেন্দুবাবু ও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি একই ব্যানারে ছাপা হয়েছে তা নিয়েই ধোঁয়াশা দেখা দিয়েছে। ওই ব্যানারের প্রচারক হিসেবে নাম রয়েছে শিবশংকর ভারতী (বাপী) ও মনীন্দ্রনাথ মল্ল’র নাম।

শিবশংকরবাবু জানাচ্ছেন, তাঁরা শুভেন্দু অধিকারী এবং মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দু’জনকেই ভালো বাসেন। দলের কর্মীরা তাই উৎসাহী হয়ে দুই নেতা নেত্রীর ছবি ব্যানারে লাগিয়েছে। মন্ত্রী সাহেব প্রতিবার ভূমি উচ্ছেদের ব্যানারে প্রোগ্রাম করেন। তাই অতি উৎসাহী হয়েই তাঁরা শুভেন্দুবাবু সহ দলনেত্রীর ছবি ব্যানারে লাগিয়েছেন। তবে প্রচারক হিসেবে শিবশংকরবাবুর নাম তাঁর দলের কর্মীরা দিয়েছেন। এই পরিস্থিতিতে ব্যানার খোলার কোনও প্রশ্নই নেই বলে জানিয়েছেন তিনি।

 

No comments