Page Nav

HIDE

Post/Page

Weather Location

Breaking !

latest

ড্রাগ কন্ট্রোলার জেনারেল অফ ইন্ডিয়ার নির্দেশে ভারতে বন্ধ হল অক্সফোর্ড ভ্যাকসিনের ট্রায়াল !

 


নিউজ বাংলা, ডেস্ক : করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিনের লক্ষ্যে অক্সফোর্ডের তৈরি ভ্যাকসিন সংগ্রহে উৎসাহী ছিল একাধিক দেশ। কিন্তু গত মঙ্গলবারে ব্রিটেনে এক স্বেচ্ছাসেবকের শরীরে এই ভ্যাকসিন দেয়ার পর তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন এবং শরীরে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা যায়।

যার কারণেই ব্রিটেনে বন্ধ করে দেওয়া হয় এই ভ্যাকসিনের ট্রায়াল। এবার ড্রাগ কন্ট্রোলার জেনারেল অফ ইন্ডিয়ার নির্দেশে ভারতেও বন্ধ হয়ে গেল অক্সফোর্ড ভ্যাকসিনের ট্রায়াল। অক্সফোর্ড এবং প্রস্তুতকারী সংস্থা অ্যাস্ট্রোজেনেকার সাথে চুক্তি করে ভারতে ওই অক্সফোর্ড ভ্যাকসিন 'কোভিশিল্ড' নামে তৈরি করা শুরু করে সেরাম ইনস্টিটিউট অফ ইন্ডিয়া।

ডিসিজিই-র অনুমতি পেয়ে ভারতের মাটিতে দ্বিতীয় এবং তৃতীয় পর্যায়ের ট্রায়াল শুরু করেছিল সেরাম সংস্থা। দেশের ২০টি জায়গায় দেড় হাজারের বেশি মানুষের ওপরে ট্রায়াল প্রক্রিয়া শুরু হয়েছিল। উল্লেখ্য, এরপরেই ভ্যাকসিন সম্পর্কে ব্রিটেনে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া পাওয়ার পর ভ্যাকসিনটির ট্রায়াল পদ্ধতি সম্পূর্ণ বন্ধ করে দেওয়া হয়।

ব্রিটেনে এই ভ্যাকসিনের ট্রায়াল পদ্ধতি বন্ধ হয়ে গেলেও ভারতে কিভাবে ট্রায়াল পদ্ধতি চালু করে রাখা হয়েছিল তা নিয়ে উঠেছিল প্রশ্ন। বুধবার রাতেই কোভিশিল্ডের ট্রায়াল বন্ধ নিয়ে সেরাম সংস্থাকে শোকজ নোটিশ পাঠানো হয় ড্রাগ কন্ট্রোলার জেনারেল অফ ইন্ডিয়ার তরফে।

মূলত: কোন ভ্যাকসিনের ট্রায়াল চলাকালীন অবস্থায় যদি কোন স্বেচ্ছাসেবকের শরীরে পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া দেখা যায় তাহলে অবিলম্বে সেই ট্রায়াল পদ্ধতির কাজ বন্ধ করে দেওয়া বাঞ্ছনীয়। ভারতের ইতিমধ্যেই হাজার জনেরও বেশি স্বেচ্ছাসেবকের ওপর এই ভ্যাকসিনের ট্রায়াল হয়ে গিয়েছে।

যতক্ষণ না এই ভ্যাকসিন সম্পর্কে কোন সুরক্ষার খবর পাওয়া যাচ্ছে ততক্ষণ এই ট্রায়াল পদ্ধতি সম্পর্কে সন্দেহ থেকেই যাচ্ছে। এরপরেই সেরাম সংস্থা ট্রায়াল' বন্ধের সিদ্ধান্ত নেয়। প্রসঙ্গতঃ কিছুদিন আগেই সেরাম সংস্থার সিইও পুনীত আদরওয়ালা জানিয়েছিলেন সম্ভবত ডিসেম্বরেই ভারতের হাতে আসতে চলেছে অক্সফোর্ডের তৈরি করোনার ভ্যাকসিন।

করোনা থেকে পরিত্রাণের আশায় এই ভ্যাকসিনের ওপরেই সবচেয়ে বেশি আশাবাদী ছিল দেশের মানুষজন। সেই ভ্যাকসিনের ট্রায়াল বন্ধ হয়ে যাওয়ার কারণে তাহলে কবে পাকাপাকিভাবে ভারতের বাজারে আসবে ভ্যাকসিন তা নিয়ে ফের উঠছে প্রশ্ন।

 #newzbangla #BengaliNews #FightAgainstCovid19 #নিউজবাংলা #Newsbangla #BengalUpdate #CovidVaccine #SeramInstitute #OxfordUniversity

No comments