Page Nav

HIDE

Post/Page

Weather Location

Breaking !

latest

অধিকারী গড়েই তৃণমূলের যুব সভাপতি পদে রদবদল ঘিরে প্রকাশ্যে ক্ষোভ প্রাক্তনের !

নিউজ বাংলা, পূর্ব মেদিনীপুর : আচমকাই পূর্ব মেদিনীপুরে তৃণমূলের যুব সভাপতির পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হল ময়নার বিধায়ক সংগ্রাম দোলুইকে। পরিবর্তে সেই জায়গায় এলেন পার্থ সারথি মাইতি। এই নিয়েই প্রকাশ্যে ক্ষোভ প্রকাশ করলেন সংগ্রাম বাবু।তিনি এ…


নিউজ বাংলা, পূর্ব মেদিনীপুর : আচমকাই পূর্ব মেদিনীপুরে তৃণমূলের যুব সভাপতির পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হল ময়নার বিধায়ক সংগ্রাম দোলুইকে। পরিবর্তে সেই জায়গায় এলেন পার্থ সারথি মাইতি। এই নিয়েই প্রকাশ্যে ক্ষোভ প্রকাশ করলেন সংগ্রাম বাবু।

তিনি একটি বেসরকারী টিভি চ্যানেলে নিজের বক্তব্য পরিষ্কার ভাবে জানিয়েছেন। সেই সঙ্গে তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন শুভেন্দুবাবুকে দলের অনেকগুলো গুরুত্বপূর্ণ জায়গা থেকে সরিয়ে দেওয়ার জন্যও।  

তাঁর মতে, "মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও শুভেন্দু অধিকারীকে দেখে রাজনীতিতে এসেছি। আমরা সেই জায়গায় তৃণমূল করছি। কিন্তু হঠাৎ করে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া ঠিক হয়নি। গোটা রাজ্যের মানুষ জানেন, মমতা ব্যানার্জীর বিশ্বস্ত সঙ্গী শুভেন্দু অধিকারী"।

"তাঁকে নিশ্চয়ই যোগ্য সম্মান দেবেন মমতা দিদি। সেই সঙ্গে কিছু না জানিয়ে দলের পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হল। তাঁকে বলে পদ থেকে সরালে সম্মান বোধ করতেন। এমনকি দলের সিদ্ধান্তটাও তাঁকে জানানো হয়নি। এর জন্য তিনি অপমানিত বোধ করেছেন বলে জানিয়েছেন সংগ্রামবাবু।

প্রসঙ্গতঃ পূর্ব মেদিনীপুর জেলার যুব তৃণমূলের সভাপতির দায়িত্বে ছিলেন ময়নার বিধায়ক সংগ্রাম দোলই। সূত্রের খবর, তিনি শুভেন্দু অধিকারীর অনুরাগী হিসেবে পরিচিত। সেই পদ থেকে এবার সংগ্রাম দোলইকে সরিয়ে নতুন দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে পার্থসারথি মাইতিকে।

সূত্রের খবর, বর্তমান যুব সভাপতি পার্থবাবু বিধায়ক অখিল গিরির অনুরাগী। তাহলে কি ঘুরেফিরে এবার শুভেন্দুর গড়েই গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব! সংগ্রাম দোলুই জানান, আমি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং শুভেন্দু অধিকারীকে দেখেই রাজনীতিতে এসেছি। সেইদিক থেকে অভিষেকবাবুর এহেন সিদ্ধান্ত ঠিক নয় বলেই অভিযোগ করেন তিনি। তিনি আরও বলেন, দলে শুভেন্দু অধিকারীকে যোগ্য সম্মান দেওয়া হয়নি সেইকারণে মানুষ ক্ষুব্ধ। তবে দল যোগ্য সম্মান ফেরত দেবে বলেই আশা করছেন তিনি।

সেইসাথে নব যুব সভাপতি পার্থসারথি মাইতি জানান, দল যাকে চাইবে সেই তো দায়িত্ব পাবে। সবাই দায়িত্ব চাইলে তো হয়না। আমি দলীয় কর্মী থেকে এই জায়গায় আসতে পেরেছি। সবাই যদি দলের জন্য কাজ করে খাটে তাহলে তারাও দায়িত্ব পাবে। নতুন দায়িত্ব পেয়েছি সবটা বুঝে সবাইকে নিয়ে মিলেমিশে কাজ করতে চাই।

যদিও এপ্রসঙ্গে দলের সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত। দলের ওপরে কোনো কথা বলতে চান না বলেই জানিয়েছেন সাংসদ শিশির অধিকারী। তবে কি এবার এভাবেই ক্রমে কমানো হবে শুভেন্দুর প্রভাব।

জঙ্গলমহল থেকে শুরু করে কংগ্রেসের দুর্গ মুর্শিদাবাদ এবং মালদা জয়ের জন্য লোকসভা ভোটে শুভেন্দুকে নয়নের মনি করেছিল তৃণমূল। এবার কি তাহলে অন্য হাওয়া বইবে ! কোন পথে ঘাসফুল শিবিরের রাজনীতি তা নিয়ে উঠছে প্রশ্ন।

#newzbangla #BengaliNews #PoliticalNews #নিউজবাংলা #newsbangla #KolkataNews #AllIndiaTrinamoolCongress


No comments