Page Nav

HIDE

Post/Page

Weather Location

Breaking !

latest

আর প্রতিশ্রুতি নয়-মুখ্যমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চাই, ক্ষুব্ধ শারীরশিক্ষা ও কর্মশিক্ষার চাকুরীপ্রার্থীরা !

নিউজ বাংলা ডেস্ক : মিটছে না চাকুরীর সমস্যা। রাজ্যে একের পর এক চাকুরী নিয়ে চলছে মামলা। একাধিকবার কাউন্সেলিং হয়েও এখনও শারীরশিক্ষা এবং কর্মশিক্ষার চাকুরীপ্রার্থীরা বঞ্চনার শিকার এমনটাই দাবী জানাচ্ছেন তারা।শুধু প্রতিশ্রুতি নয় এবার স…

 

নিউজ বাংলা ডেস্ক : মিটছে না চাকুরীর সমস্যা। রাজ্যে একের পর এক চাকুরী নিয়ে চলছে মামলা। একাধিকবার কাউন্সেলিং হয়েও এখনও শারীরশিক্ষা এবং কর্মশিক্ষার চাকুরীপ্রার্থীরা বঞ্চনার শিকার এমনটাই দাবী জানাচ্ছেন তারা।

শুধু প্রতিশ্রুতি নয় এবার সরাসরি হস্তক্ষেপের আর্জি জানাল তারা। তাই এবার কর্মসংস্থান না হলে বৃহত্তর আন্দোলনের পথে নামার সিদ্ধান্ত নিল এই চাকুরীপ্রার্থীরা। রাজ্যে দুর্নীতির জেরে জেরবার সব মহল।

সেই তকমা ঝেড়ে ফেলতে দলনেত্রী নিজেই সবটা তদারকি করছেন। চাকরির ক্ষেত্রেও যে দুর্নীতি জড়িয়ে আছে সে বিষয়টি নিয়ে সরব একাধিক প্রার্থীরা। ২০১৭ সালে হওয়া এসএসসি পরীক্ষার ইন্টারভিউ

হয় ২০১৮ তে, ফাইনাল মেরিট লিস্ট প্রকাশ হওয়ার পর একাধিক দুর্নীতির অভিযোগ জানিয়ে মামলা হয় হাইকোর্টে। এই মামলা চলার পর কলকাতা প্রেসক্লাবের সামনে দীর্ঘ ২৯ দিন ধরে অনশন করেন চাকরিপ্রার্থীরা।

এই অনশনে ছিলেন নবম শ্রেণী থেকে দ্বাদশ শ্রেণীর চাকুরিপ্রার্থীরাও। সে সময় মুখ্যমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি মতো এই নবম-দ্বাদশ শ্রেণীর চাকুরিপ্রার্থীদের শূন্যপদ বাড়িয়ে ৮০০ ও ১৫০০ এর বেশি সিটে নিয়োগ করা হয়।

কিন্তু শারীরশিক্ষা ও কর্মশিক্ষার মত বিষয়ে চতুর্থ কাউনসেলিংয়ের পরেও প্রতিশ্রুতি মত কোনো সমাধান রাস্তা বের হয়নি। বারবার বিকাশ ভবন থেকে আচার্য সদন ঘুরে কোনো সুরাহা হয়নি এই চাকুরিপ্রার্থীদের।

তাই আজ নিজেদের বিপন্নতার কথা জানিয়ে তারা জানায়, মুখ্যমন্ত্রীর দেওয়া প্রতিশ্রুতি সত্ত্বেও আজ আমরা বঞ্চিত, খুব অসহায়, এই করোনা পরিস্থিতিতে শিক্ষিত বেকার ছেলেমেয়েরা শুধুমাত্র মুখ্যমন্ত্রীর দেওয়া প্রতিশ্রুতির দিকে তাকিয়েই বেঁচে আছে।

কিন্তু সেই প্রতিশ্রুতি বাস্তবে কার্যকর না হলে অনেক আশা ভরসা শেষ হয়ে যাবে তাদের এমনটাই জানিয়েছেন তারা। তারা আরও বলেন, চাকরির ক্ষেত্রে দুর্নীতি নতুন কিছু নয় তবুও সবটা দুর্নীতি হয়না।

তাই কিছুটা সংশয় কিছুটা আশা নিয়েই দিন কাটছে। আর যদি সবটা মিথ্যে হয় তাহলে বৃহত্তর আন্দোলনের পথে নামার সিদ্ধান্ত নেব আমরা। উল্লেখ্য, এই আবেদনপ্রার্থীদের প্রথম কাউন্সেলিং হয় ২০১৮ এর ডিসেম্বর মাসে। দ্বিতীয় কাউন্সিলিং হয় ২০১৯ এর ডিসেম্বর মাসে। তৃতীয় কাউন্সিলিং হয় ২০২০ এর ফেব্রুয়ারি মাসে। এবং চতুর্থ কাউন্সিলিং হয় ২০২০ এর মার্চ মাসের প্রথম সপ্তাহে।

 #newzbangla #BengaliNews #EducationalUpdate #নিউজবাংলা #Newsbangla #BengalUpdate

 

No comments