Page Nav

HIDE

Post/Page

Weather Location

Breaking !

latest

একাধিক নিম্নচাপে দক্ষিণবঙ্গে ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টিপাত, বন্যার আশঙ্কা পশ্চিম মেদিনীপুরে !

 


নিউজ বাংলা, পশ্চিম মেদিনীপুর : একের পর এক নিম্নচাপ জাঁকিয়ে বসছে দক্ষিণবঙ্গে। তার জেরেই দক্ষিণবঙ্গের একাধিক জেলায় সতর্কবার্তা পাঠানো হয়েছে। কোথাও ভারী বৃষ্টিপাত আবার কোথাও বজ্রবিদ্যুৎ সহ ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে।

সেইসাথে ঝোড়ো হাওয়া বইবে একাধিক এলাকায়। ইতিমধ্যেই আলিপুর আবহাওয়া দফতর থেকে পশ্চিম মেদিনীপুর, বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, ঝাড়গ্রামে ভারী এবং অতি ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনার কথা জানানো হয়েছে।

তার মধ্যেই পশ্চিম মেদিনীপুরের শহর এবং শহরকেন্দ্রিক এলাকা সহ গ্রাম এলাকাগুলি যথেষ্ট আশঙ্কায় প্রতিটি মুহুর্ত কাটাচ্ছে। মূলতঃ কংসাবতী এবং শিলাবতী নদীর জলস্তর ক্রমশ বিপদসীমার মুখোমুখি হওয়ার পথে। আর দীর্ঘ বৃষ্টিপাতের জেরে নদীর বাঁধ ভেঙে বন্যা পরিস্থিতি হওয়ার উপক্রম রয়েছে।

ইতিমধ্যেই টানা বৃষ্টির জেরে ঘাটালের বিস্তীর্ণ এলাকা খড়ার, দাসপুর, ঘাটাল পৌরসভা এলাকা জলমগ্ন। নৌকা বা ছোট ডিঙিতে করে মানুষজন জল পেরিয়ে কোনো স্কুল বা ত্রাণশিবিরে আশ্রয় নিয়েছেন। জল ঢুকেছে বাড়ির ভেতরেও। বর্ষাকালীন এই পরিস্থিতিতে সাপ, পোকামাকড়ের হাত থেকে রেহাই পেতে তাই ত্রাণশিবিরেই ভিড় জমাচ্ছেন মানুষরা।

অন্যদিকে ডেবরা ব্লকের লোয়াদা এবং ট্যাবাগেরিয়াতে কংসাবতী নদীর চেহারা দুই পাড় পর্যন্ত জলস্তর পৌঁছেছে। ডেবরা ব্লকের বিডিও মারফত এলাকায় এলাকায় সতর্কতা জারি করা হয়েছে। নদীর বাঁধ সংলগ্ন মাটির বাড়ি থেকে সরানো হয়েছে বাসিন্দাদের।

টানা বৃষ্টির কারণে রেহাই নেই মেদিনীপুর, খড়গপুর এলাকা। একাধিক রাস্তা এবং বিভিন্ন ওয়ার্ড জলমগ্ন হয়েছে। কোথাও হাঁটুসমান আবার কোথাও কোমর অবধি জল পেরিয়ে যাতায়াত করছে মানুষজন। এলাকায় একাধিক পাকা বাড়িতে ঢুকেছে জল।

মূলত নিয়ম না মেনে কোনো নিকাশি ব্যবস্থা না রেখেই এলাকায় গড়ে উঠেছে একাধিক বাড়ি, ফ্ল্যাট, দোকান। আর তার কারণেই জল নিকাশি কোনো ব্যবস্থা নেই। সেই সমস্যায় এবার জেরবার এলাকার সাধারণ মানুষজন। প্রায় দিনতিনেক এই পরিস্থিতিতেই কাটাচ্ছেন তারা।

সেকারণেই প্রতিটি থানাকে এবিষয়ে বাড়তি নজরদারি চালানোর কথা বলা হয়েছে। পরিস্থিতি অনুযায়ী এলাকার স্কুলগুলিকে ত্রাণশিবির হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। নিম্নচাপের এই ভ্রূকুটি দুশ্চিন্তার কালো মেঘ তৈরী করছে ঘাটাল, ডেবরা, মেদিনীপুর, খড়গপুর এলাকার মানুষদের মনে।

 #NewzBangla #BengaliNews #WeatherReport #NewsUpdate #নিউজবাংলা #FloodLikeSituation #WestMidnapore

No comments