Page Nav

HIDE

Post/Page

Weather Location

Breaking !

latest

পারিবারিক বচসার জের, জ্যেঠিমার বাড়ির আলমারিতে উদ্ধার শিশুর হাত পা বাঁধা নিথর দেহ !

 

নিউজবাংলা ডেস্ক, বীরভূম :  শুক্রবার বেলার দিকে দুই জায়ের মধ্যে পারিবারিক বিষয় নিয়ে সামান্য বচনা হয়েছিল। আর তার জেরেই কিনা ছোট্ট শিশুকে হাত পা বেঁধে আলমারিতে আটকে রেখে মেরে ফেলার অভিযোগ উঠেছে তারই জ্যেঠিমার বিরুদ্ধে।

মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে বীরভুম জেলার বোলপুর থানার কাশীপুর গ্রামে। মৃত শিশুটির নাম আসিফ খান। ঘটনার খবর পেয়েই উত্তেজিত গ্রামবাসীরা অভিযুক্ত মহিলাকে হেনস্থা করে। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে শিশুটির মৃতদেহ উদ্ধারের পাশাপাশি অভিযুক্ত জ্যেঠিমাকে গ্রেফতার করেছে।

মৃত শিশুটির বাবা মুরশেদ খান জানিয়েছেন, শুক্রবার বিকেল থেকে আচমকাই তাঁর ছোট্ট শিশুটিকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। চারিদিকে খুঁজে হতাশ হয়ে শেষ পর্যন্ত তাঁরা সন্ধ্যে নাগাদ বোলপুর থানায় যোগাযোগ করে অভিযোগ জানান।

কান্না ভেজা গলায় মুরশেদ জানান, বাড়ি ফিরে নিজের স্ত্রীর কাছে খোঁজ করি কারও সঙ্গে ঝামেলা হয়েছিল কিনা। তখনই জানতে পারি বৌদির সঙ্গে ঝামেলা হয়েছিল স্ত্রীর। এরপরেই বৌদির বাড়িতে জোর করে ঢুকে ছেলের খোঁজ করতে যাই। আর তখনই আলমারির ভেতরে হাত পা বাঁধা অবস্থায় ছেলের নিথর দেহ উদ্ধার করি।

যদিও অভিযুক্ত জ্যেঠিমার দাবী, তাঁর ছেলের সঙ্গে জায়ের ছেলে খেলা করছিল। সেই সময় দুই শিশুর মধ্যে লড়াই বেঁধে যায়। নিজের ছেলেকে শাসন করার পর জায়ের ছেলেকেও চড় কষিয়ে দেন তিনি। এরপরেই শিশুটি সঞ্জা হারিয়ে পড়ে যায়। তখনই ভয় পেয়ে তাঁকে নিয়ে গিয়ে আলমারিতে লুকিয়ে রাখা হয়।

যদিও অভিযুক্তের এই বক্তব্য মানতে রাজি নয় মৃত শিশুর পরিবার। তাঁদের দাবী, এমনটা হলে শিশুটির হাত পা দড়ি দিয়ে বেঁধে তাঁকে আলমারিতে ভরে রাখা হত না। পুলিশ সূত্রে খবর, চড় মারার জেরে শিশুর মৃত্যু হয়েছে নাকি আলমারিতে ভরে রাখায় দম আটকে তাঁর মৃত্যু হয়েছে তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। 

#newzbangla #BengaliNews #CrimeNews #নিউজবাংলা #newsbangla #DistrictNews #BirbhumNews

No comments