Page Nav

HIDE

Post/Page

Weather Location

Breaking !

latest

মুখতোড় জবাব দেবে ৪.৫ জেনারেশন এয়ারক্রাফট, দক্ষিণ পূর্ব আকাশের যুদ্ধের নীতি বদলাবে রাফাল !

নিউজ বাংলা, নয়াদিল্লি : ২০০৭ সালে ইউপিএ সরকারের আমলেই ফ্রান্সের দাঁসোর কাছ থেকে ১২৬টি রাফাল যুদ্ধবিমান কেনার চুক্তি হয়েছিল। কিন্তু নরেন্দ্র মোদীর ক্ষমতায় আসার পর ২০১৬ তে দাঁসোর সাথে নতুন করে চুক্তি হয় ভারতের। ৫৯ হাজার কোটি টাকার…


নিউজ বাংলা, নয়াদিল্লি : ২০০৭ সালে ইউপিএ সরকারের আমলেই ফ্রান্সের দাঁসোর কাছ থেকে ১২৬টি রাফাল যুদ্ধবিমান কেনার চুক্তি হয়েছিল। কিন্তু নরেন্দ্র মোদীর ক্ষমতায় আসার পর ২০১৬ তে দাঁসোর সাথে নতুন করে চুক্তি হয় ভারতের।

৫৯ হাজার কোটি টাকার চুক্তিতে ৩৬ টি রাফালের চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। অবশেষে অত্যাধুনিক এই সামরিক শক্তি এখন সেজে ওঠার অপেক্ষা। আগামী ২০ অগাস্ট সম্পূর্ণরূপে সুসজ্জিত হয়ে রূপপ্রদর্শন করবে 'বিউটি অ্যান্ড বিস্ট' রাফাল, এমনটাই খবর।

রাফালের বিয়ন্ড ভিজ্যুয়াল রেঞ্জ ১৫০ কিলোমিটারের বেশি। পাকিস্তানের হাতে থাকা বিমানগুলির বিয়ন্ড ভিজ্যুয়াল রেঞ্জ খুব বেশি ৫০ কিলোমিটার। এয়ার টু এয়ার অ্যাটাক করার ক্ষমতা রয়েছে এই যুদ্ধবিমানের। ৩৭০০ কিমি বেগে ১৫০ কিমি দূরে থাকা লক্ষ্যবস্তুকে সহজেই নিশানায় এনে ঘায়েল করতে পারে এই যোদ্ধা।

রাফালে থাকা সুপারসোনিক ক্রুজ মিসাইল ৩০০ কিলোমিটার দূরত্বে লক্ষ্যভেদ করতে সক্ষম। ব্রহ্মসের স্ট্রাইক রেঞ্জ ক্ষমতা ২৯০ কিলোমিটার। ১০০ কিলোমিটার জায়গার মধ্যে ৪৫ টি জায়গায় একসাথে আঘাত হানতে সক্ষম এই যুদ্ধবিমান।

পাকিস্তান এবং চীনের বায়ুসেনা জেএফ ১৭ এবং জে ২০ যুদ্ধবিমান ব্যবহার করছে। চিনের মতে, জেএফ ১৭ ফোর্থ জেনারেশন এবং জে ২০ ফিফথ জেনারেশনের এয়ারক্রাফট। রাফালের নির্মাণকারী দাঁসো জানিয়েছেন, রাফাল ৪.৫ জেনারেশনের এয়ারক্রাফট।

প্রয়োজনের থেকে অতিরিক্ত কাজ করার ক্ষমতা রাখে এগুলি। রাফালের যে ধরণের মিসাইল, অস্ত্রশস্ত্র বহন ক্ষমতা এবং তার দক্ষতা তা দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার আকাশে যুদ্ধের গতিপ্রকৃতি বদলে দেবে এমনটাই বলছেন সামরিক বিশেষজ্ঞরা।

#newzbangla #IndianAirForce #TechNews #bengalinews #নিউজবাংলা #newsbangla #RAFAL #AmbalaAirBase

No comments