Page Nav

HIDE

Post/Page

Weather Location

Breaking !

latest

বেসরকারি সংস্থার হাত ধরে ১০৯ টি রুটে ছুটবে প্যাসেঞ্জার ট্রেন !

নিউজ বাংলা ডেস্ক : করোনা পরবর্তীতে রেলমন্ত্রকের সিদ্ধান্তনুযায়ী, আগামী ১২ অগাস্টের আগে স্বাভাবিক হবে না লোকাল এবং প্যাসেঞ্জার ট্রেনের পরিষেবা। সেক্ষেত্রে দেশে যে পরিমান প্যাসেঞ্জার ট্রেন চলে তা সচল করতে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নি…


নিউজ বাংলা ডেস্ক : করোনা পরবর্তীতে রেলমন্ত্রকের সিদ্ধান্তনুযায়ী, আগামী ১২ অগাস্টের আগে স্বাভাবিক হবে না লোকাল এবং প্যাসেঞ্জার ট্রেনের পরিষেবা। সেক্ষেত্রে দেশে যে পরিমান প্যাসেঞ্জার ট্রেন চলে তা সচল করতে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিয়েছে রেল। প্যাসেঞ্জার ট্রেন চালানোর দায়িত্ব বেসরকারি সংস্থার হাতে তুলে দিতে চায় রেল। রেল সূত্রে খবর, বেসরকারি লগ্নিতে ৩০ হাজার কোটি টাকা আয়ের লক্ষ্য রেখেছে রেল। সেই পরিকল্পনা মতোই ১০৯ টি রুটে বেসরকারি সংস্থার মাধ্যমে চালানো হবে প্যাসেঞ্জার ট্রেন। সেই লক্ষ্য নিয়েই টেন্ডার ডাকার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ট্রেন চালানোর জন্য রেলকে ভাড়া দেবে বেসরকারি সংস্থা। সেক্ষেত্রে রেলের গার্ড ও চালকদের নিয়েই ট্রেন চালাতে পারে দায়িত্বপ্রাপ্ত সংস্থাটি। সেক্ষেত্রে বেশকিছু শর্ত মেনে সেই সংস্থাকে চলতে হবে বলে জানিয়েছে রেল। মুম্বাই, হাওড়া, পাটনা, সেকেন্দ্রাবাদ, চন্ডিগড়, চেন্নাই সহ বারোটি জংশন জুড়তে চলেছে এই আওতায়। ১০৯ টি রুটে ১৬ টি কোচবিশিষ্ট অত্যাধুনিক দেড়শোর বেশি রেক আনা হবে। যাত্রী স্বাচ্ছন্দ্যের এবং পরিষেবা দ্রুত করার লক্ষ্যেই এই সিদ্ধান্ত। রেলের এই সিদ্ধান্তকে অবশ্য চরম বিপর্যয় বলেই কটাক্ষ বিরোধী দলগুলির। তাদের দাবী, ভারতের প্রাচীন এবং ঐতিহ্যবাহী এই পরিষেবা বেসরকারিকরণ করা কেন্দ্রীয় সরকারের ব্যর্থতা ছাড়া কিছুই নয়। এতে বহু কর্মী কর্মহীন হওয়ার আশঙ্কা থেকে যাচ্ছে। বেসরকারি সংস্থার হাতে গিয়ে আজ পর্যন্ত কোনো কিছুই ভালো পরিষেবাতে নেই। তাই এই সিদ্ধান্ত কেন্দ্রীয় সরকারের অত্যন্ত ভূল। এর বিরোধিতা করে লোকসভা এবং বিধানসভা কক্ষে দাবীও তুলবেন তারা করোনা পরবর্তীতে। তবে সাধারণ মানুষের দাবী, অত্যাধুনিক মেট্রোর মত যদি ট্রেন পরিষেবা সুখকর হয় তাহলে অসুবিধা নেই।

No comments