Page Nav

HIDE

Post/Page

Weather Location

Breaking !

latest

বাংলাদেশে ধৃত জেএমবি সদস্য আয়েশা আসলে হুগলির বাঙালি তনয়া প্রজ্ঞা, দুঁদে গোয়েন্দারাও হতবাক !

নিউজ বাংলা, ঢাকা : অনেকদিন ধরেই গোয়েন্দাদের তালিকায় ছিলেন জেএমবির নারী বাহিনীর সদস্য মোহনা। অবশেষে রাজধানী ঢাকার সদরঘাট এলাকা থেকে পুলিশের জালে ধরা পড়েছে সে। পুলিশি জেরায় তার জীবন তথ্য হিসেবে যা উঠে এসেছে পুলিশের হাতে তাতেই অবাক …

নিউজ বাংলা, ঢাকা : অনেকদিন ধরেই গোয়েন্দাদের তালিকায় ছিলেন জেএমবির নারী বাহিনীর সদস্য মোহনা। অবশেষে রাজধানী ঢাকার সদরঘাট এলাকা থেকে পুলিশের জালে ধরা পড়েছে সে।

পুলিশি জেরায় তার জীবন তথ্য হিসেবে যা উঠে এসেছে পুলিশের হাতে তাতেই অবাক বাংলাদেশ গোয়েন্দা পুলিশ। জানা যায় মোহনা আদতে পশ্চিমবঙ্গের বাসিন্দা। অপরাধ জগতে সেভাবে নামডাক না থাকলেও কার্যকলাপে নজরে এসেছিল গোয়েন্দাদের।

২৬ বছরের আয়েশা জান্নাত মোহনা ওরফে জান্নতুত তাসনিম আদতে পশ্চিমবঙ্গের হুগলি জেলার ধনিয়াখালী থানার পশ্চিম কেশবপুরের বাসিন্দা। জন্মসূত্রে তিনি হিন্দু ধর্মাবলম্বী এবং তার আসল নাম প্রজ্ঞা দেবনাথ।

ক্লাস নাইনে পড়ার সময়েই বন্ধুর কথায় ধর্মান্তরিত হয়ে অনলাইনে জেএমবি নারী বাহিনীর প্রধান আসমানী খাতুন আসমারের সাথে যোগাযোগ হয় তার। এরপর একাধিকবার দুই দেশে যাতায়াত করা থেকে শুরু করে জঙ্গি সংগঠনের জন্য পশ্চিমবঙ্গ থেকে চাঁদা আদায় করত সে।

ভুয়ো নথিপত্র দিয়ে  বাংলাদেশের পরিচয়পত্র বানিয়েছিল বলে বাংলাদেশ পুলিশ সূত্রের খবর। ওমান প্রবাসী এক বাংলাদেশ নাগরিককে বিয়ে করেছেন বলেও পুলিশের কাছে স্বীকার করেছে মোহনা। তিনি এই সংগঠনে মোটা টাকা দেয় বলেও জানা গিয়েছে।

তবে কোনো হিন্দু মহিলার এভাবে ধর্মান্তরিত হয়ে জঙ্গি সংগঠনে যুক্ত হওয়ার ঘটনায় তাজ্জব হয়েছেন গোয়েন্দারা। তাই নয়, গ্রেফতারের পর সমস্ত ঘটনা, কিভাবে যাতায়াত করত, সমস্ত প্রশ্নের জবাব সাবলীল ভাবে দিয়েছেন বলে জানা গিয়েছে।

কেমন লাগছে আমাদের প্রতিবেদন, আপনার মন্তব্য জানান নীচের কমেন্ট বক্স-এ। আপনার মূল্যবান মন্তব্য ও পরামর্শ আমাদের চলার পথ সমৃদ্ধ করবে।


No comments