Page Nav

HIDE

Post/Page

Weather Location

Breaking !

latest

কলকাতায় বেসরকারী বাস চালু নিয়ে পুনরায় অনিশ্চয়তা, ভর্তুকি নয় ভাড়া বাড়ানোর দাবীতেই অনড় বাস মিনিবাস মালিক সংগঠন !

নিউজবাংলা ডেস্ক, কলকাতা :গত দু'দিন আগেই রাজ্য সরকার নবান্ন থেকে ঘোষণা করে জানিয়েছিলেন কলকাতায় গণ পরিবহন সচল করতে ভাড়া বাড়িয়ে মানুষের ওপর চাপ বাড়াতে রাজি নয় সরকার। পরিবর্তে সরকারের তরফ থেকে ৬০০০ বেসরকারী বাসকে প্রতি মাসে ১৫ হা…

নিউজবাংলা ডেস্ক, কলকাতা : গত দু'দিন আগেই রাজ্য সরকার নবান্ন থেকে ঘোষণা করে জানিয়েছিলেন কলকাতায় গণ পরিবহন সচল করতে ভাড়া বাড়িয়ে মানুষের ওপর চাপ বাড়াতে রাজি নয় সরকার। পরিবর্তে সরকারের তরফ থেকে ৬০০০ বেসরকারী বাসকে প্রতি মাসে ১৫ হাজার টাকা করে ভর্তুকি দেওয়া হবে বলে জানিয়েছিলেন তিনি।

শুধু তাই নয়, বাসের চালক বা কন্ডাক্টরদের কোনও রকম স্বাস্থ্য সমস্যা হলে তাঁদের প্রত্যেককে স্বাস্থ্যসাথীর আওতায় আনার ঘোষণাও করেন মুখ্যমন্ত্রী। মুখ্যমন্ত্রীর এই ঘোষণায় নিজেদের খুশি ধরে রাখতে পারেননি বাস মিনিবাস মালিকদের একাংশ। সরকারের এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষও। তিনিও জানিয়েছিলেন, এই দাবী তাঁরা দীর্ঘদিন ধরেই জানিয়ে আসছিলেন।

কিন্তু মাত্র ২৪ ঘন্টা ঘুরতে না ঘুরতেই রাজ্য সরকারের কাছ থেকে মাসিক ভর্তুকি নিতে অস্বীকার করছেন বলে বেসরকারী বাস মিনিবাস মালিক সংগঠনগুলি জানিয়ে দিল। তাঁদের দাবী, সরকারের থেকে ভর্তুকির টাকা তাঁরা নেবেন না। পরিবর্তে সাধারণ মানুষের ওপর ভাড়ার বোঝা চাপানোই তাঁদের মূল দাবী।

বাস মালিক সংগঠনগুলির দাবী, বাসের কর্মচারীদের কমিশন পদ্ধতিতে টাকা দেওয়া হয়। সরকারের দেওয়া টাকায় প্রতিদিন ৫০০ টাকা করে খরচ মিলবে। কিন্তু এই মুহূর্তে বাস চালাতে গেলে প্রতিদিন তাঁদের লোকসান হচ্ছে প্রায় ২০০০ টাকা বলেই দাবী সংগঠনগুলির।

এই পরিস্থিতিতে তাঁরা ভাড়া বাড়িয়েই নিজেদের লোকসান পুষিয়ে নিতে চান। যদিও সরকারে দাবী, এই মুহূর্তে বেরোজগার আর আর্থিক দুরবস্থায় জেরবার মানুষের ওপর ভাড়া বাড়ানোর বোঝা কিছুতেই চাপানো উচিত হবে না। কিন্তু অনড় বাস মালিক সংগঠনগুলিও।

এই পরিস্থিতিতে কলকাতার গণ পরিবহন সচল হওয়ার যে সম্ভাবনা দেখা দিয়েছিল তা আবারও অনিশ্চয়তায় ঢেকে গেল। এই সমস্যা কবে ও কিভাবে মিটবে তা এখনও পরিষ্কার নয়।


No comments