Page Nav

HIDE

Post/Page

Weather Location

Breaking !

latest

তুঙ্গে চাহিদা, আগামী ৭ দিন হাওড়া থেকে দিল্লীগামী ট্রেনের সমস্ত টিকিট শেষ !

নিউজবাংলা ডেস্ক :লকডাউনের মাঝেই মঙ্গলবার থেকে দেশজুড়ে বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ রুটে চালু হচ্ছে ট্রেন চলাচল। কেবলমাত্র অনলাইনে কনফার্ম টিকিট কাটলেই এই ট্রেনে চড়ার সুযোগ মিলবে। কিন্তু সেই টিকিটের চাহিদা যে ঠিক কতটা তা বুঝিয়ে দিল সোম…


নিউজবাংলা ডেস্ক : লকডাউনের মাঝেই মঙ্গলবার থেকে দেশজুড়ে বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ রুটে চালু হচ্ছে ট্রেন চলাচল। কেবলমাত্র অনলাইনে কনফার্ম টিকিট কাটলেই এই ট্রেনে চড়ার সুযোগ মিলবে। কিন্তু সেই টিকিটের চাহিদা যে ঠিক কতটা তা বুঝিয়ে দিল সোমবার টিকিট বিক্রী শুরু হওয়ার পরেই।

এদিন টেকনিক্যাল ত্রুটির জন্য বিকেল ৪টের পরিবর্তে কিছুটা দেরীতে সন্ধ্যে ৬টায় শুরু হয় টিকিট বুকিং। তবে টিকিট বিক্রী শুরু হওয়ার মাত্র ১০ থেকে ১৫ মিনিটের মধ্যেই হাওড়া থেকে দিল্লীগামী প্রথম ট্রেনের প্রায় সমস্ত টিকিট বুকিং হয়ে যায়। এই মুহূর্তে হাওড়া থেকে কেবল এই একটি মাত্র রুটেই ট্রেনের টিকিট মিলবে।

আর মাত্র ১ ঘন্টায় শেষ হয়ে যায় হাওড়া থেকে দিল্লীগামী এক সপ্তাহের সমস্ত ট্রেনের টিকিট, এমনটাই দাবী একাধিক প্রথম সারির সংবাদ মাধ্যমের। হাওড়া থেকে প্রতিদিন বিকেল ৫.০৫টায় দিল্লীগামী ট্রেন ছাড়বে বলে খবর। সাতদিন আগে থেকে নির্দিষ্ট ট্রেনের বুকিং করা যাবে। কেউ টিকিট বাতিল করতে চাইলে তাঁকে একদিন আগেই তা বাতিল করতে হবে, এবং এরজন্য ৫০%টাকা ফেরৎ পাবেন তাঁরা।

এবার রেলের তরফে নির্দেশ দিয়ে জানানো হয়েছে যাদের হাতে কনফার্ম বুকিং-এর টিকিট থাকবে কেবলমাত্র তাঁদেরই স্টেশনে ঢুকতে দেওয়া হবে। ট্রেন ছাড়ার দেড় ঘন্টা আগে স্টেশনে হাজির হতে হবে যাত্রীদের। তাঁদের প্রত্যেককে পরীক্ষা করেই স্টেশনে ঢুকতে দেওয়া হবে।

সূত্রের খবর, সোমবার হাওড়া স্টেশনের সুরক্ষা ব্যবস্থা খতিয়ে দেখতে রেলপুলিশের আধিকারীকরা স্টেশনে আসেন। যাদের হাতে কনফার্ম টিকিট থাকবে না তাদের কোনওভাবেই স্টেশনে ঢুকতে দেওয়া হবে না বলেই আধিকারীকরা জানিয়ে দিয়েছেন।

এই মুহূর্তে আইআরসিটিসি ওয়েবসাইট (https://www.irctc.co.in) খুললে দেখা যাচ্ছে করোনা নিয়ে একটি গুরুত্বপূর্ণ বার্তা। যেখানে বলা হয়েছে, যাত্রীরা নিজেদের স্বাস্থ্যের জন্য নিজেরাই দায়ী থাকবেন। মুখে মাস্ক পরা, প্রয়োজনে বারেবারে হাত ধোয়ার পাশাপাশি ট্রেনেও স্যোসাল ডিস্টেন্সিং মেনে চলতে হবে।

রেলওয়ে সূত্রে জানা গেছে, দিল্লীর সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত এমন গুরুত্বপূর্ণ রুটে ১৫ জোড়া ট্রেন চালানো হবে। যার মধ্যে রয়েছে দিল্লী-ডিব্রুগড়, হাওড়া, আগরতলা, পাটনা, বিলাশপুর, রাঁচি, ভুবনেশ্বর, সেকেন্দ্রাবাদ, বেঙ্গালুরু, চেন্নাই, তিরুবনন্তপুরম, মাদগাও, মুম্বাই সেন্ট্রাল, আহমেদাবাদ এবং জম্মু তাওয়াই স্টেশন।

ট্রেনের টিকিট বুকিং করা প্রতিটি যাত্রীর উদ্দেশ্যে রেলের বার্তা, যাত্রীরা যে স্টেশনের উদ্দেশ্যে রওনা দেবেন সেখানকার রাজ্যের নির্দিষ্ট স্বাস্থ্য প্রটোকল মেনে চলতে হবে। সেই সঙ্গে আগামী ১৭ মে পর্যন্ত কোনও ট্রেন যদি বাতিল হয় সেক্ষেত্রে যাত্রীদের আগাম টিকিট বুকিংয়ের সমস্ত টাকা আইআরসিটিসি'র তরফে গ্রাহকদের নির্ধারিত ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে ফেরত পাঠিয়ে দেওয়া হবে বলেও রেলের তরফে বার্তা দেওয়া হয়েছে।


No comments