Page Nav

HIDE

Post/Page

Weather Location

Breaking !

latest

চিনে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ছড়ানোর জন্য সন্দেহের শীর্ষে এই প্রাণীটিই, দাবী চিনা গবেষকদের !



নিউজবাংলা ডেস্ক : চিন সহ গোটা বিশ্বকে নাড়িয়ে দেওয়া করোনা ভাইরাস কার শরীর থেকে ছড়িয়েছে? সেই প্রশ্নের উত্তর খুঁজতেই এখন রাতদিন এক করে পরিশ্রম করে চলেছেন চিনা গবেষকরা। এখন পর্যন্ত তাঁরা নিশ্চিত হয়েছেন এই ভাইরাস ছড়িয়েছে হুবেই প্রদেশের উহান শহরের একটি সি-ফুড মার্কেট থেকে। এই বাজারে সি ফুডের পাশাপাশি বিভিন্ন ধরনের জীবিত বন্যপ্রাণীও বিক্রি হত।



চিনের বিজ্ঞানীরা এখন পর্যন্ত প্রায় হাজারেরও বেশী বন্যপ্রানীর ওপর পরীক্ষা নিরীক্ষা চালিয়েছেন করোনা ভাইরাসের উৎস খুঁজে বের করার জন্য। বাদুড়, ভোঁদড়, সাপ প্রভৃতি প্রাণীকে সন্দেহের তালিকায় রাখলেও এদের থেকেই যে করোনা ভাইরাস ছড়িয়েছে মানুষের শরীরে তার পোক্ত কোনও প্রমাণ এখনও হাতে পাননি গবেষকরা।

তবে এই মুহূর্তে চিনা গবেষকদের দাবী, একটি বিশেষ প্রাণীর শরীরে পাওয়া করোনা ভাইরাসের বিন্যাসের সঙ্গে প্রায় ৯৯ শতাংশ মিল পাওয়া গিয়েছে মানুষের শরীরে ছড়িয়ে পড়া করোনা ভাইরাসের বিন্যাসের। এই প্রাণীটি হল বিলুপ্ত প্রায় প্যাঙ্গোলিন বা বনরুই। আঁশযুক্ত একমাত্র স্তন্যপায়ী এই প্রাণীকে তাই বিশেষ ভাবে নজরে রেখেছেন গবেষকরা।



সূত্রের খবর, বিশ্বজুড়ে ত্রাস সৃষ্টিকারী করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলার মতো উপযুক্ত কোন প্রতিষেধক এখনও তৈরি হয়নি বলেই খবর। তাই গবেষকরা এখন মরিয়া হয়ে চেষ্টা চালাচ্ছেন এই ভাইরাসের উৎস সন্ধানে। কারন এই মারণ ভাইরাসের উৎস খুঁজে পেলেই তার প্রতিষেধক তৈরির কাজ অনেকটাই সহজ হয়ে যাবে বলে গবেষকদের দাবী।




তবে চিনা গবেষকরা প্যাঙ্গোলিনের শরীরে করোনা ভাইরাসের মিল খুঁজে পেলেও এই তত্ত্ব এখনই মানতে পারছেন না মার্কিন গবেষকরা। তাঁদের দাবী, এই গবেষণার বিষয়ে কোনও জার্নালে রিপোর্ট প্রকাশিত হয়নি। তার অর্থ, এখনও পর্যন্ত সম্পূর্ণ প্রাথমিক ধারণার ওপরেই দাঁড়িয়ে রয়েছে। তাই এই বিষয়ে আরও বিষদ গবেষণা চালিয়ে যাওয়া প্রয়োজন বলেই গবেষকদের মত। 




No comments