Page Nav

HIDE

Post/Page

Weather Location

Breaking !

latest

এখন পর্যন্ত প্রকাশ্যে এল ৭০টি এটিএম জালিয়াতির অভিযোগ, খোয়া গেছে প্রায় ১৪ লক্ষ টাকা !



নিউজবাংলা ডেস্ক :  একে একে পুলিশের কাছে জমা হয়েছে প্রায় ৭০টি অভিযোগ। আর তার জেরেই প্রকাশ্যে এসেছে এটিএম জালিয়াতির বড়সড় চক্রান্তের খবর। দিল্লীতে বসেই কলকাতার যাদবপুর থানা এলাকার গ্রাহকদের অ্যাকাউন্টের টাকা লুঠ করে নিয়েছে দুষ্কৃতীরা।



প্রথম দিনে গোটা কয়েক অভিযোগ পেয়ে নড়েচড়ে বসে যাদবপুর থানার পুলিশ। ঘটনার তদন্তে নামে লালবাজারের সাইবার সেল। কিন্তু ততক্ষণে যা হওয়ার তা ঘটে গিয়েছে। দিল্লী পুলিশের সহায়তায় প্রকাশ্যে এসেছে মাথায় টুপি ও মুখে মাস্ক পরিহিত দুষ্কৃতীর।

কিন্তু লুঠ হয়ে যাওয়া টাকা গ্রাহকেরা ফিরে পাবেন তো? সেই বিষয়ে এখনও কোনও সদুত্তর দিতে পারেনি ব্যাঙ্কগুলি। পুলিশের ধারণা, যাদবপুর থানা এলাকায় থাকা দুটি এটিএমের গ্রাহকদেরই মূলতঃ টার্গেট করা হয়েছে। তবে এই এটিএম গুলিতে কোনও স্কিমার লাগানোর প্রমাণ মেলেনি এখনও।



তাহলে কি অনেক আগে থেকেই তথ্য চুরি হয়েছে? নাকি অন্য কোনও উন্নত প্রযুক্তিকে কাজে লাগানো হয়েছে? কোনও উত্তর নেই এটিএমের পরিচালক ব্যাঙ্কগুলির কাছে। এদিকে তদন্তে নেমে পুলিশ জানতে পেরেছে অনলাইনে সামান্য টাকার বিনিময়ে খুব সহজেই মিলছে স্কিমার মেশিন।




এভাবে এটিএম জালিয়াতির মেশিন ঘরে বসেই পেয়ে যাচ্ছে দুষ্কৃতীরা। সেই প্রক্রিয়া যাতে বন্ধ করা যায় সেই বিষয়েও তদন্তকারীরা চেষ্টা চালাচ্ছেন বলে জানা গেছে। এদিকে আর কত এটিএম-এর ডেটা দুষ্কৃতীদের হাতে রয়েছে তা নিয়ে এখনও অন্ধকারে তদন্তকারীরা।

তদন্তকারীদের অনুরোধ, কিছুদিন অন্তর যেন প্রত্যেকেই তাঁদের এটিএম-এর পিন নম্বর বদল করেন। এর ফলে এটিএম ক্লোন হয়ে গেলেও সেগুলি ব্যবহার করে আর টাকা তোলা সম্ভব হবে না। এক্ষেত্রে গ্রাহকদের আগেও বহুবার সচেতন করা হয়েছে। অনেকেই পিন বদল করলেও যে সমস্ত গ্রাহকেরা এখনও পিন বদল করেননি তাঁদের সঞ্চয়েই কোপ পড়েছে বলে তদন্তকারীদের মত।      


No comments