Page Nav

HIDE

Post/Page

Weather Location

Breaking !

latest

রাজকোষের ঘাটতি মেটাতে ইন্ডিয়ান অয়েলের শেয়ার বিক্রীর চিন্তাভাবনা কেন্দ্রের !



নিউজবাংলা ডেস্ক : এবার ইন্ডিয়ান অয়েল। দেশের সর্ববৃহৎ তেল উৎপাদনকারী সংস্থাকেই এবার বেসরকারী করণের পথে হাঁটতে চলেছে কেন্দ্রের সরকার। এই সংস্থার শেয়ার বেচে বাজার থেকে প্রায় ৩৩,০০০ কোটি টাকা কেন্দ্রের কোষাগারে নিয়ে আসার পরিকল্পনা রয়েছে বলে জানা গেছে।



সংবাদ সংস্থা সূত্রে খবর, বর্তমান বছরে বাজেট ঘাটতির লক্ষ্যমাত্রা জিডিপির ৩.৩ শতাংশের মধ্যে বেঁধে ফেলার লক্ষ্যমাত্রা নিয়েছে সরকার। কিন্তু মন্দার কারণে রাজস্ব আদায় কম হওয়ায় সরকার সেই টার্গেট পূরণে কতটা সফল হবে, তা নিয়ে জোর সংশয় আছে। যার জেরে পরিকাঠামো ও উন্নয়নমূলক প্রকল্পে খরচের ক্ষমতা কমছে সরকারের।

পরিস্থিতি সামাল দিতে বর্তমান কেন্দ্রের সরকার বেশ কয়েকটি সংস্থার সরকারি অংশিদারিত্ব ৫১ শতাংশের নীচে নামিয়ে আনার বিষয়ে চিন্তাভাবনা চালাচ্ছিল। যার মধ্যে অন্যতম সংস্থা হল ইন্ডিয়ান অয়েল। আগামী সপ্তাহে এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে পারে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীসভা।



বর্তমানে ইন্ডিয়ান অয়েলের ৫১.৫ শতাংশ অংশিদারিত্ব সরাসরি রয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারের হাতে। এছাড়া আরও তিন রাষ্ট্রায় সংস্থা LICI, ONGC এবং অয়েল ইন্ডিয়া লিমিটেড (OIL) মিলিতভাবে আরও ২৫.৯ শতাংশের মালিক। এবার কেন্দ্রের হাতে থাকা অংশীদারিত্বের বেশ কিছুটা কমিয়ে দেওয়া হলেও এখনই তেল উৎপাদনকারী সংস্থার নিয়ন্ত্রণ সরকারের হাতেই থাকবে বলে জানা গেছে।




কেন্দ্রের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থাগুলির শেয়ার বিক্রি করে চলতি আর্থিক বছরে রেকর্ড পরিমাণ অর্থ সংগ্রহের লক্ষ্যমাত্রা নেওয়া হয়েছে। শুধুমাত্র সরকারি সংস্থার শেয়ার বিক্রী করে এই বছর ১,০০০,০০০,০০০,০০০ টাকা (১ ট্রিলিয়ন) ঘরে তোলার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

এই অর্থ সংগ্রহের লক্ষমাত্রা পূরণে ইতিমধ্যে ভারত পেট্রোলিয়ামকে পুরোদস্তুর বিক্রীর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। কেন্দ্রের আর্থিক ঘাটতি মেটাতে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক থেকেও বিপুল পরিমানে টাকা কেন্দ্রের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। রেলকেও ক্রমেই বেসরকারীকরণের দিকে নিয়ে যাওয়া শুরু হয়েছে। যদিও কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রীর এই সমস্ত প্রক্রিয়াকেই দেশের সমৃদ্ধির জন্য যুগান্তকারী পদক্ষেপ হিসেবেই দেখছেন। 




No comments