Page Nav

HIDE

Post/Page

Weather Location

Breaking !

latest

কাশ্মীর থেকে ৫ শ্রমিকের মৃতদেহ ফিরল মুর্শিদাবাদে, রাজনৈতিক তরজা অব্যাহত !

নিউজবাংলা ডেস্ক : কাশ্মীরের পুলওয়ামায় গুলিবিদ্ধ ৫ শ্রমিকের মৃতদেহ ফিরল বাড়িতে। বুধবার রাতের বিমানে কলকাতায় দেহ আসার পর সেগুলিকে সড়কপথে নিয়ে যাওয়া হয়েছে মুর্শিদাবাদের সাগরদীঘির বহালগ্রামে। মৃতদেহ দেখতে রাস্তায় নেমেছে হাজার হাজার ম…


নিউজবাংলা ডেস্ক : কাশ্মীরের পুলওয়ামায় গুলিবিদ্ধ ৫ শ্রমিকের মৃতদেহ ফিরল বাড়িতে। বুধবার রাতের বিমানে কলকাতায় দেহ আসার পর সেগুলিকে সড়কপথে নিয়ে যাওয়া হয়েছে মুর্শিদাবাদের সাগরদীঘির বহালগ্রামে। মৃতদেহ দেখতে রাস্তায় নেমেছে হাজার হাজার মানুষ।




দেহ পৌঁছানোর সঙ্গে সঙ্গে চারিদিকে শুধুই কান্নার রোল শোনা যাচ্ছে। ইতিমধ্যে রাজ্য সরকার মৃতদের পরিবারপিছু ৫ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ ঘোষণা করেছেন। রাজ্যের দুই মন্ত্রী যাচ্ছেন ঘটনাস্থলে। তবে এই হত্যালীলার ঘটনা ঘিরে রাংলার রাজনৈতিক তরজাও চলছে সমানতালে।


একদিকে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ অভিযোগ তুলছেন, এই রাজ্যের শ্রমিকদের কেন বাংলা ছেড়ে ভিন রাজ্যে পাড়ি জমাতে হবে? দীর্ঘদিন ধরেই রাজ্যে কর্মসংস্থান তলানিতে পৌঁছেছে। তাই এই শ্রমিকদের মৃত্যুর জন্য এই রাজ্যের পরিস্থিতিই সম্পূর্ণ দায়ী বলে তাঁর অভিযোগ।





অন্যদিকে মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম এই ঘটনায় কেন্দ্রের বিজেপি সরকারকে তুলোধোনা করতে ছাড়েননি। কেন্দ্রকে উদ্দেশ্য করে তাঁর মন্তব্য, কাশ্মীরে যাওয়া বিদেশী সাংসদদের দলকে বিপুল সুরক্ষা দিতে ব্যস্ত কেন্দ্র। অথচ সাধারণ মানুষের নিরাপত্তার কোনও দায়িত্ব নেই সরকারের।

যারা নির্বিচারে ওই শ্রমিকদের খুন করল তাঁদের চিহ্নিত করে কঠোর শাস্তির ব্যবস্থা কেন করছে না কেন্দ্রের সরকার? কেন এই ঘটনায় মুখে কুলুপ এঁটে বসে আছেন প্রধানমন্ত্রী থেকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সেই প্রশ্নও তুলেছেন তিনি।





তবে রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বরা যাই বলুন না কেন সে সবে মাথা ঘামাচ্ছেন না মৃতদের পরিবারগুলি। আপেলের মরশুমে কাশ্মীরে গিয়ে কয়েকমাস কাজ করলে ভালো রোজগার হবে এই আশাতেই বাংলা থেকে বহু শ্রমিক এই সময় ভূস্বর্গে ভীড় করেন। এই মুহূর্তে মুর্শিদাবাদের আরও বহু যুবক কাশ্মীরে রয়েছেন। এদিনের হত্যাকান্ডের পর তাঁরাও আতঙ্কের মধ্যে রয়েছেন বলে জানিয়েছেন।

No comments