Page Nav

HIDE

Post/Page

Weather Location

Breaking !

latest

খড়্গপুরে ধৃত সশস্ত্র ডাকাত ব্যারাকপুরের বিজেপি নেতার ঘনিষ্ঠ দাবী ঘিরে জল্পনা ! (ভিডিও)



পার্থ খাঁড়া, নিউজবাংলা ডেস্ক : বুধবার গভীর রাতে পশ্চিম মেদিনীপুরের খড়্গপুরের মথুরাকাটি এলাকা থেকে ডাকাতির উদ্দেশ্যে জড়ো হওয়া এক সশস্ত্র দুষ্কৃতীকে পাকড়াও করল পুলিশ।


তবে তাঁর আরও ৩ সঙ্গী পুলিশের চোখে ধূলো দিয়ে পালিয়েছে। পরে ঘটনার তদন্তে নেমে পুলিশের হাতে এসেছে, আটক দুষ্কৃতী ব্যারাকপুরের দাপুটে বিজেপি নেতার ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত সুনীল ইয়াঙ্গা।



ওই দুষ্কৃতীর কাছে থেকে একটি ৭এমএম পিস্তল সহ ৪ রাউন্ড কার্তুজ উদ্ধার হয়েছে বলে দাবী পুলিশের। ধৃতকে বৃহস্পতিবার আদালতে তোলা হয়েছে। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক চাপান উতোর, একদিকে তৃণমূল এই ঘটনাকে হাতিয়ার করে বিজেপিকে দুষছে, অন্যদিকে বিজেপি ইতিমধ্যে ওই দুষ্কৃতীর সঙ্গে দলের যোগাযোগ নেই বলে দাবী করছে।

ধৃত দুষ্কৃতীকে চিনে নিন-
 

এদিকে খড়্গপুরে পরপর গুলি চালানোর ঘটনায় দোষীদের গ্রেফতারির দাবীতে বৃহস্পতিবার বিকেলে খড়্গপুর টাউন থানা ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখাচ্ছিলেন বিজেপি নেতা কর্মীরা| থানার মূল ফটকের সামনে ঘেরাও বিক্ষোভ চলাকালীনই এক দুষ্কৃতীকে কোমরে ধরে থানা থেকে বার করে গাড়িতে তুললেন পুলিশ কর্মীরা|



পরে যখন বিক্ষোভকারীরা জানতে পারেন ডাকাতির উদ্দেশ্যে জড়ো হওয়া এক দুষ্কৃতীকে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে এবং সেই দুষ্কৃতী তাদেরই দলের সাংসদ অর্জুন সিং ঘনিষ্ঠ বলে পুলিশ দাবী করছে তখন ভিড় ধীরে ধীরে কমতে থাকে| শ্লোগান-বিক্ষোভে রাশ টানেন নেতারা| তড়িঘড়ি করে স্মারকলিপি দিয়ে থানা চত্বর ছাড়েন বিজেপি নেতা কর্মীরা|

এবিষয়ে জানতে চাওয়া হলে বিজেপির রাজ্য নেতা তুষার মুখার্জি জানান, সাংসদ কোনো অনুষ্ঠানে গেলে অনেকেই তাঁর সঙ্গে ছবি তোলেন| সেই ছবি স্যোশাল মিডিয়ায় ছাড়েন| এতে প্রমান হয় না সাংসদ ওই ব্যক্তিকে বা দুষ্কৃতীকে মদত জোগাচ্ছেন| পুলিশ মিথ্যে মামলা সাজাতে এখানে বিজেপি সাংসদের নাম জড়াচ্ছে|




তৃণমূলের পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা সভাপতি অজিত মাইতি জানান, বিজেপির ওই সাংসদ তাঁর এলাকায় যা করছেন তা সবাই দেখছেন| কাদের সঙ্গে নিয়ে করেন তাও সকলে জানেন| খড়্গপুরে গোলমাল পাকানোর মুলে রয়েছে বিজেপির ষড়যন্ত্র|

ওরাই ব্যারাকপুর থেকে দুষ্কৃতীদের পাঠিয়ে আতঙ্কের এবং সন্ত্রাসের পরিবেশ তৈরী করেছে খড়্গপুরে| এ জিনিস লাগাতার চলতে পারে না| পুলিশ সঠিক পদক্ষেপ নিয়েছে| আইনের উপর তাঁদের ভরসা রয়েছে| তৃণমূল শান্তিপূর্ণ ও গনত্রান্ত্রিক ভাবে রাজনৈতিক কর্মসূচি পালন করে| আর বিজেপির ভরসা শুধুই ভারাটে গুন্ডা|




No comments