Page Nav

HIDE

Post/Page

Weather Location

Breaking !

latest

দীর্ঘ বঞ্চনার প্রতিবাদে রাজ্য জুড়ে ধর্মঘটের ডাক দিল কলেজে কর্মরত অস্থায়ী শিক্ষাকর্মীরা !

নিউজবাংলা ডেস্ক :রাজ্য জুড়ে প্রায় প্রতিটি কলেজেই কাজের সুবাদে নিয়োগ করা হয়েছে অস্থায়ী শিক্ষাকর্মী। যারা সপ্তাহে টানা ৬ দিন কাজ করেন। ছাত্রছাত্রীদের নিরবচ্ছিন্ন পরিষেবা প্রদানে যাদের জুড়ি মেলা ভার। কিন্ত দীর্ঘদিন ধরে তাঁরাই বঞ্চনা…


নিউজবাংলা ডেস্ক : রাজ্য জুড়ে প্রায় প্রতিটি কলেজেই কাজের সুবাদে নিয়োগ করা হয়েছে অস্থায়ী শিক্ষাকর্মী। যারা সপ্তাহে টানা ৬ দিন কাজ করেন। ছাত্রছাত্রীদের নিরবচ্ছিন্ন পরিষেবা প্রদানে যাদের জুড়ি মেলা ভার। কিন্ত দীর্ঘদিন ধরে তাঁরাই বঞ্চনার শিকার।



একাধিকবার রাজ্যের বিভিন্ন স্তরে আবেদন নিবেদন করেও তাঁদের এই বঞ্চনার অবসান হয়নি। অবশেষে রাজ্য জুড়ে কলেজগুলিতে কর্মরত অস্থায়ীশিক্ষাকর্মীরা ধর্মঘটে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। অস্থায়ী শিক্ষকদের সংগঠন পশ্চিমবঙ্গ কলেজ ক্যাজুয়েল এমপ্লয়িজ সমিতি'র ডাকে আগামী ২ সেপ্টেম্বর রাজ্য জুড়ে ধর্মঘটে সামিল হতে চলেছেন তারা।

নিজেদের বঞ্চনার বিষয়ে রাজ্য সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করতেই একদিনের এই প্রতীকি ধর্মঘটের ডাক দেওয়া হয়েছে। ২ সেপ্টেম্বর সকাল ৬টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত এই ধর্মঘট চলবে বলে সংগঠনের তরফে জানানো হয়েছে।



পশ্চিমবঙ্গ কলেজ ক্যাজুয়েল এমপ্লয়িজ সমিতি'র পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার সাধারণ সম্পাদক আশিষ মন্ডলের দাবী অনুযায়ী, কলেজে কর্মরত অস্থায়ী কর্মচারীদের ৬০ বছর বয়স পর্যন্ত সুনিশ্চিত কাজের ব্যবস্থা করতে হয়ে। সরকারী স্বীকৃতি প্রদান ও সুনির্দিষ্ট বেতন পরিকাঠামো চালু করতে হবে।

সংগঠনের মতে, সামান্য পারিশ্রমিকে সপ্তাহের ৬দিন কলেজের যাবতীয় কাজ করেন তারা। কিন্তু তাঁদের না আছে কোনও স্বীকৃতি, না আছে কর্মনিশ্চয়তা, না আছে কোনও সুনির্দিষ্ট বেতনক্রম। যার জেরে পরিবার পরিজন নিয়ে দিশেহারা অবস্থায় জীবন কাটাতে হচ্ছে তাঁদের। 




রাজ্যের অন্যান্য সরকারী দফতের আংশিক ও চুক্তিভিত্তিক কর্মচারী এমনকি ক্লাবের অনুদানের ক্ষেত্রে রাজ্যসরকার যেভাবে পদক্ষেপ নিচ্ছেন সেইভাবেই কলেজের অস্থায়ী শিক্ষাকর্মীদের বিষয়েও মানবিক দৃষ্টিভঙ্গিতে সরকার দেখুক এটাই চাইছেন তারা। 



No comments