Page Nav

HIDE

Post/Page

Weather Location

Breaking !

latest

বিদ্যুৎ দফতরের কর্মীদের ১০% ডিএ, রণনীতি স্থির করতে সর্বদলীয় বৈঠকে আন্দোলনরত রাজ্য সরকারী কর্মীরা !



নিউজবাংলা ডেস্ক : কেন্দ্রীয় হারে ডিএ'র দাবীতে দীর্ঘদিন ধরেই আন্দোলন চালাচ্ছেন রাজ্যের সরকারী কর্মচারীদের একাধিক সংগঠন। যার মধ্যে বিরোধী দলের কর্মচারী সংগঠন যেমন রয়েছে তেমনই শাসক দলের সংগঠনগুলিও কেন্দ্রের হারে ডিএ'র দাবীতে সরব।



কিন্তু হঠাৎ করেই রাজ্য সরকারের তরফ থেকে রাজ্যের বিদ্যুৎ দফতরের অধীনে থাকা তিন সংস্থার কর্মীদের জন্যে ১০ শতাংশ ডিএ ঘোষণা করা হয়েছে। বিদুৎ দফতরের অধীনে থাকা উন্নয়ন,উৎপাদন ও সংবহন দফতরের কর্মীরা এই বর্ধিত হারে ডিএ-র সুবিধা পাবেন।




এবং এই নির্দেশিকা কার্যকর হচ্ছে এবছরের ১লা জুলাই থেকেই। প্রসঙ্গতঃ দিন কয়েক আগে বিদ্যুৎ দফতরের কর্মীদের একাধিক দাবী নিয়ে বিদ্যুৎ ভবনে গিয়ে আন্দোলনে সামিল হয়েছিলেন বিধাননগরের বিতর্কিত মেয়র সব্যসাচী দত্ত। বর্তমানে তিনি মুকুল রায়ের ঘনিষ্ঠ এবং তৃণমূল বিরোধী হয়ে ওঠায় এই আন্দোলন যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ হয়ে ওঠে।

এমনই এক পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে বিদ্যুৎ দফতরের কর্মীদের ১০% ডিএ ঘোষণা করল তৃণমূল সরকার। অথচ এই রাজ্যেই ডিএ'র বৈষম্যের বিরুদ্ধে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছে একাধিক রাজ্য সরকারী কর্মচারীদের সংগঠন। মুখ্যমন্ত্রীর আজকের ঘোষণায় তাঁরা যারপরনাই মর্মাহত হয়েছেন।



কনফেডারেশন অফ স্টেট গভর্নমেন্ট এমপ্লয়িজ(INTUC) এর কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সুবীর সাহা জানিয়েছেন, হাইকোর্ট এর আগে রায় দিয়ে জানিয়েছে ডিএ সরকারী কর্মীদের অধিকার। স্যাটের আদালতে ইতিমধ্যে ডিএ মামলার শুনানি শেষ হয়েছে। শীঘ্রই সেই মামলার রায়দান রয়েছে। তবে এর মাঝে রাজ্য সরকারের ডিএ নিয়ে ঘোষণা করার ক্ষেত্রে কোনও বাধা নেই।



তারপরেও রাজ্যের লক্ষ লক্ষ সরকারী কর্মচারীদের দিক থেকে মুখ ফিরিয়ে রয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। তাঁর আবেদন, এই বিষয়ে যেন মুখ্যমন্ত্রী দ্রুত তাঁর সিদ্ধান্ত জানান। ইতিমধ্যে আজকের ঘটনার পর বৃহস্পতিবার রাজ্যের একাধিক সরকারী কর্মচারী সংগঠনগুলি দলমত নির্বিশেষে যৌথ সংগ্রামী মঞ্চের ব্যানারে বৈঠকে বসতে চলেছেন বলে জানা গেছে। ক্যালকাটা কর্পোরেশানে বসা বৈঠকে স্থির হবে ন্যাহ্য ডিএ'র দাবীতে তাঁরা কোন পথ অবলম্বন করবেন। এই যৌথ সংগ্রামী মঞ্চে থাকছে ডানপন্থী, বামপন্থী, বিজেপি সহ বিরোধী দলের সংগঠনগুলি।





সরকারী কর্মচারী পরিষদের আহ্বায়ক দেবাশিষ শীল জানিয়েছেন, বিদ্যুৎ দফতরের কর্মীরা ১০% ডিএ পাচ্ছেন এতে কোনও সমস্যা নেই কিন্তু কেন রাজ্যের সমস্ত সরকারী কর্মচারীরা ন্যাহ্য ডিএ থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন তাঁর দাবী, সব্যসাচী দত্তের বাড়বাড়ন্ত ঠেকাতেই কি বিদ্যুৎ দফতরের কর্মীদের ডিএ বাড়ানো হল?

তিনি জানিয়েছেন, ন্যাহ্য ডিএ'র দাবী নিয়ে তাঁরা দীর্ঘ আইনী লড়াই চালাচ্ছেন পাশাপাশি রাস্তায় নেমেও আন্দোলন করছেন তাঁরা একসময় তাঁদের কুকুরের সঙ্গে তুলনা করা হয়েছিল তাই কুকুরের মুখোশ পরেও তাঁরা আন্দোলনে সামিল হচ্ছেন যতদিন পর্যন্ত না ন্যাহ্য ডিএ'র দাবী পূরণ হচ্ছে ততদিন তাঁরা আন্দোলন চালিয়ে যাবেন বলেই জানিয়েছেন



  ------- বিজ্ঞাপন -------

  ------- বিজ্ঞাপন -------

 ------- বিজ্ঞাপন -------


No comments