Page Nav

HIDE

Post/Page

Weather Location

Breaking !

latest

Breaking ! DA মামলায় রাজ্য সরকারী কর্মচারীদের ঐতিহাসিক জয়, কেন্দ্রের হারে বেতনেই মান্যতা SAT আদালতের

নিউজবাংলা ডেস্ক, কলকাতা : অবশেষে দীর্ঘ আইনী লড়াইয়ে মিলল স্বীকৃতি। রাজ্য সরকারী কর্মীদের কেন্দ্রের হারেই ডিএ দিতে হবে রাজ্যকে। অনিয়মিত ডিএ দেওয়ায় বহু টাকা বকেয়া রয়েছে। তাই ২০১২ থেকে এরিয়ার দিতে হবে সরকারকে। আগামী ১ বছরের মধ্যে অথব…


নিউজবাংলা ডেস্ক, কলকাতা : অবশেষে দীর্ঘ আইনী লড়াইয়ে মিলল স্বীকৃতি। রাজ্য সরকারী কর্মীদের কেন্দ্রের হারেই ডিএ দিতে হবে রাজ্যকে। অনিয়মিত ডিএ দেওয়ায় বহু টাকা বকেয়া রয়েছে। তাই ২০১২ থেকে এরিয়ার দিতে হবে সরকারকে। আগামী ১ বছরের মধ্যে অথবা পে কমিশন ঘোষণা হওয়ার আগেই এই বকেয়া টাকা মিটিতে দিতে হবে।



শুক্রবার এমনই ঐতিহাসিক রায় দিল স্টেট অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ ট্রাইবুনাল বা SAT-এর আদালত। আদালত জানিয়ে দিয়েছে, এই রাজ্যের সরকারী কর্মীদের কনজিউমার প্রাইস ইন্ডেক্স (CPI) অর্থাৎ কেন্দ্রের হারেই বেতন দিতে হবে। সেই সঙ্গে এই রাজ্যে কর্মরত রাজ্য সরকারী কর্মীদের তুলনায় দিল্লী ও চেন্নাইয়ে কর্মরত এই রাজ্যের সরকারী কর্মীদের যেভাবে ডিএ বৈষম্য তৈরি হয়েছে তা জাস্টিফায়েড নয় বলেই আদালত জানিয়েছে।



আদালতের নির্দেশ অনুযায়ী, কখনও একই রাজ্যের অন্তর্গত সরকারী কর্মীদের ভিন্ন ডিএ দেওয়া যায় না। যারা দিল্লী বা চেন্নাইয়ে কর্মরত তাদের আলাদা কোনও অতিরিক্ত অ্যালাউন্স দেওয়া যায়, তবে আলাদা ডিএ দেওয়া যায় না। এটা আইনগত ভাবে অসঙ্গত বলেই আদালত জানিয়েছে।




মামলাকারী সংগঠন কনফেডারেশন অফ স্টেট গভর্নমেন্ট এমপ্লয়িজ(INTUC)-এর কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সুবীর সাহা আজকের রায় প্রকাশ্যে আসার পরেই তাদের খুশি জাহির করেছেন। তিনি জানান, অবশেষে দীর্ঘ লড়াইয়ের জয় হল। রাজ্জ্য সরকার যেভাবে দিল্লী ও চেন্নাইয়ের কর্মীদের সঙ্গে এই রাজ্যের কর্মরত কর্মীদের মধ্যে বিভেদ তৈরি করেছিল তা দূর হল।

সেই সঙ্গে কেন্দ্রের হারে অর্থাৎ বছরে দু'বার ডিএ দিতে এবার রাজ্য সরকারকে নির্দেশ দেওয়া হল। আদালতের নির্দেশ আগামী ৩ মাসের মধ্যে ডিএ দেওয়ার বিষয়ে নির্দিষ্ট পদ্ধতির সিদ্ধান্ত নিতে হবে। এবং আগামী ৬ মাসের মধ্যে তা নোটিশ আকারে প্রকাশের জন্য আদালত জানিয়েছে।

এরই পাশাপাশি ২০০৬ সালের হিসেবে যে এরিয়ার পাওনা হচ্ছে তা আগামী ১ বছরের মধ্যে অথবা ৬ষ্ঠ বেতন কমিশনের সুপারিশ ঘোষণা হওয়ার আগেই মিটিয়ে দিতে হবে বলে আদালত জানিয়েছে। পাশাপাশি গোটা মামলা চলাকালীন রাজ্য সরকার বারে বারে তাদের অর্থের অভাবের কথা তুলে ধরেছিল।

সেই বিষয়েও আদালতের অবজারভেশান, রাজ্য সরকারের কোষাগারে টাকা নেই তা ঠিক নয়। রাজ্য সরকারের যেভাবে রেভিনিউ আয় হচ্ছে তার পর তাদের টাকা নেই একথা ঠিক নয়। তাই ডিএ দেওয়ার ক্ষেত্রে কেন্দ্রের হারকেই প্রাধান্য দিতে হবে।

সরকারী কর্মচারী পরিষদের আহ্বায়ক শ্রী দেবাশীষ শীল জানিয়েছেন, আজকের রায়ে মামলাকারীদের স্বাগত জানাচ্ছি। তিনি জানান, দীর্ঘদিন ধরে এই লড়াইয়ে তাঁরাও সামিল রয়েছেন। আগামী মাসের ৮ তারিখে স্যাট-এর আদালতে তাদের মামলারও রায়দান রয়েছে। সেখানেও আজকের রায়েরই প্রতিফলন হবে বলেই জানিয়েছেন তিনি।



  ------- বিজ্ঞাপন -------

  ------- বিজ্ঞাপন -------

 ------- বিজ্ঞাপন -------

No comments