Page Nav

HIDE
GRID_STYLE

Post/Page

Weather Location

Breaking News:

latest

নবীন বরণে কলেজ ক্যাম্পাসে শতাধিক "ভেষজ ঔষধি" গাছ রোপণ করল ব্রেনওয়্যার ইউনিভার্সিটি'র ফার্মেসী বিভাগ !



কলকাতা : আমাদের দেশ হল ঔষধি গাছের আঁতুড়ঘর। প্রাচীন যুগে ভারতবর্ষের চিকিৎসা ব্যবস্থায় যে অভূতপূর্ব সাফল্য এসেছিল তা ছিল এই ভেষজ গাছের গুণেই। বেদ, পুরানের, রামায়ণের মতো প্রাচীন গ্রন্থেও উল্লেখ রয়েছে তার। হনুমানের বিশল্যকরণী সংগ্রহের কাহিনীও প্রায় সবারই জানা।

কিন্তু বর্তমানে নগরায়ণের দৌলতে হারিয়ে যেতে বসেছে সেই ঐতিহ্য। প্রাকৃতিক সম্পদ ক্রমেই ধ্বংসের মুখে। রাস্তা ঘাটে এখন আর সেভাবে দেখা মেলেনা ঔষধি গাছের। এই হারিয়ে যাওয়া ঐতিহ্যকে পুনরায় ফিরিয়ে আনার এক অসাধারণ উদ্যোগ নিল কলকাতার বারাসতের ব্রেনওয়্যার ইউনিভার্সিটি'র ফার্মেসী বিভাগ।



তাঁদের কলেজের এবারের নবীন বরণ অনুষ্ঠানে ছাত্রছাত্রীদের নিয়ে ক্যাম্পাসের মধ্যেই শতাধিক ভেষজ ঔষধি'র চারাগাছ রোপণ করল তারা। শনিবার ছাত্রছাত্রীদের নিয়ে ফার্মেসী বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ডঃ মানস ভূঁইয়া এবং সহকারী অধ্যাপক পার্থ প্রতিম মাইতি এই বৃক্ষ রোপণ কর্মসূচী রূপায়ন করেন।
পার্থবাবু জানিয়েছেন, ঔষধ তৈরির ক্ষেত্রে ভেষজ গাছের জুড়ি মেলা ভার। তাই ফার্মেসি বিভাগের ছাত্রছাত্রীদের প্রথম থেকেই এই ভেষজ গাছের মাহাত্ম বোঝানোর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। তিনি জানান, সমাজসচেতনতা গড়ে তুলতে রাজ্য সরকারের অনুপ্রেরণায় বিশ্ব বন সৃজন দিবসকে মাথায় রেখেই এই পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে।

এদিন কলেজ ক্যাম্পাসে শতাধিক ভেষজ ঔষধি গাছ যেমন তুলসি, অ্যালোভেরা, নয়নতারা'র মতো যে বহু জীবনদায়ী গাছ লাগানো হয়েছে। তাঁর মতে, এআইটিসি'র নির্দেশিকা অনুযায়ী কলেজের ছাত্রছাত্রীদের পরিবেশের সঙ্গে খাপ খাওয়াতে এক সপ্তাহের ইন্ডাকশান প্রোগ্রাম করার নির্দেশ রয়েছে। সেই নির্দেশ মতোই ক্যাম্পাসে গাছ লাগিয়ে নতুন ছাত্রছাত্রীদের পরিবেশ বান্ধব ও সহজ করে তোলার জন্য এটা একটা প্রয়াস বলেও জানিয়েছেন তিনি।